1. news@banglaroitizzo.com : BanglarOitizzo :
  2. banglaroitizzo.news@gmail.com : newseditor :
শুক্রবার, ০৪ ডিসেম্বর ২০২০, ০৫:৪০ পূর্বাহ্ন

গোবিন্দগঞ্জে নিজের জমি থেকে সন্ত্রাসী কায়দায় উচ্ছেদ করার হুমকির প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: রবিবার, ২১ জুন, ২০২০
  • ১৭ বার পড়া হয়েছে
সংবাদ সম্মেলন

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার কাটাখালী বালুয়া বাজারে নিজের ক্রয়কৃত জমির মুদির দোকান থেকে সন্ত্রাসী কায়দায় উচ্ছেদের হুমকির প্রতিবাদে জমির মালিক দেলোয়ার হোসেনের সংবাদ সম্মেলণ অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ ২১ জুন সকাল সাড়ে ১১ টায় গোবিন্দগঞ্জ সাংবাদিক এসোসিয়েশনের কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলণে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন জমির মালিক দেলোয়ার হোসেন। তিনি বলেন ২০১২ সালের ৪ মে তালুককানুপুর ইউনিয়নের ছোট জামালপুর গ্রামের মৃত-এলাহী বকস মন্ডলের ছেলে আব্দুল কাদের মন্ডলের কাছ থেকে ২ লাখ টাকা নোটারী পাবলিকের এফিডেভিট মুলে জামানত দিয়ে দোকান ঘড় ভাড়া নিয়ে ব্যবসা করতে থাকি। ২০১৯ সালের ১২ ডিসেম্বর ওই জায়গার ওয়ারিশ মৃত-কিনু সরকারের ছেলে সোহেল মিয়া সরকারের কাছ থেকে দোকান ঘর সহ ১ শতাংশ জমি ৩ লাখ টাকা দিয়ে দলিল মুলে কবলা করি। যাহার দলিল নং-১৫৫০৩।

এরপর থেকে উক্ত জমিতে সংস্কার পূর্বক পাকা ইটের তৈরি টিন শেড ঘড় নির্মান করে মুদির দোকান দিয়া ব্যবসা করিয়া আসিতেছি। ব্যবসা করা কালিন ওই জমির শরিক আনা দাবী করে আব্দুল কাদের মন্ডলের ছেলে ইকবাল হোসেন মন্ডল ও ইকলাসুর রহমান মন্ডল ব্যবসা প্রতিষ্ঠান সহ জায়গা বে-দখল দেওয়ার হুমকি দেয়। আমি নিরুপায় হয়ে গোবিন্দগঞ্জ সহকারী জজ আদালতে উক্ত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে জমি বন্টন সহ নিষেধাজ্ঞা মামলা দায়ের করি। যা বিজ্ঞ আদালত শুনানি অন্তে ওই জমিতে নিষেধাজ্ঞা জারি করেন এবং বর্তমানে মামলাটি বিচারাধীন রয়েছে। যাহার মোকদ্দমা নং- ৪১/২০। বিজ্ঞ আদালতের নিষেধাঙ্গা শর্তেও উক্ত ব্যক্তিগণ ভাড়া টিয়া সন্ত্রাসী নিয়ে আমার জায়গা ও দোকান ঘর বেদখল দেওয়ার হুমকি অব্যাহত ভাবে দিয়ে আসিতেছে। এতে বাধা দিলে আমাকে ও পরিবারের লোকজনকে হত্যা করবে বলে প্রকাশ্যে লোকজনের মাঝে হুমকি দেয়। তাই আমার এবং পরিবারের নিরাপত্তার দাবী জানিয়ে সরকারের সংশ্লিষ্ঠ কর্তৃপক্ষের আশু হস্তক্ষেপ কামনা করছি।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

নিউজ ক্যাটাগরি