1. news@banglaroitizzo.com : BanglarOitizzo :
  2. banglaroitizzo.news@gmail.com : newseditor :
শনিবার, ০৫ ডিসেম্বর ২০২০, ১১:৪২ অপরাহ্ন

জলঢাকায় কাচাঁ সড়ক সংস্কার না করায় জনগনের চলাচলে চরম দুর্ভোগ।

প্রতিবেদকের নাম:
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ২৫ জুন, ২০২০
  • ২৩ বার পড়া হয়েছে
সড়ক সংস্কার ও মেরামত

নীলফামারীর জলঢাকায় কাচাঁ সড়ক সংস্কার ও মেরামত না করায় জনগনের চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। উপজেলার গোলমুন্ডা ইউনিয়নের ৭ নং ওয়ার্ড ভাবনচুর বাজার হতে শিমুল তলা বাধের পার পর্যন্ত ৩ কিঃমিঃ কাচাঁ সড়কটি অর্ধ শত বছর ধরে সংস্কার মেরামত না করায় চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। সংস্কারে জন্য বিভিন্ন সময়ে সরকার অর্থ বরাদ্দ দিলেও যথাযথ ভাবে কাজ না হওয়ায় ও করায় সড়কটি ব্যবহারে ও চলাচলে অনুপযোগি হয়ে পরেছে। সাধারণ মানুষ ও এলাকাবাসীর প্রশ্ন সরকারী বরাদ্দকৃত অর্থ যায় কোথায় ? অর্ধশত বছর ধরে সড়কের এ অবস্থা চলতে থাকায় জনপ্রতিনিধিদের উপর চরম ক্ষুব্ধ এলাকাবাসী। সরকারের এডিপি, এলজিএসপি,টি আর, কাবিখা, সহ সাংসদ, উপজেলা, ও ইউনিয়ন পরিষদের বিভিন্ন তহবিল থেকে এসব কাচাঁ সড়ক পাকা করার কথা থাকলেও তা করে না।

মঙ্গলবার সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায় , গোলমুন্ডা ইউনিয়নের ভাবনচুর এলাকার সড়কের অবস্থা দেখে মনে হয় সেখানে সরকারের কোন উন্নয়নের ছোয়া লাগেনি।সড়কটির দৈর্ঘ্য ভাবনচুর বাজার হতে শিমুল তলা বাধের পার পর্যন্ত ৩ কিঃ মিঃ কাচাঁ সড়ক। ঐ এলাকাবাসীর গোলমুন্ডা ইউনিয়ন ও উপজেলা সদরের সাথে যাতায়াত ও যোগাযোগের একমাত্র সরক এটি।

এলাকাবাসী মোস্তফা জানান,সড়ক টিতে বড় বড় গর্তের সৃষ্টি হওয়ায় শুস্কমৌসুমে ধুলাবালি আর বর্ষা মৌসুমে কাদা পানি ও মাটির কারনে এলাকাবাসীর উৎপাদিত কৃষি পান্য বাজারে নিতে ও চলাচলে চরম দুর্ভোগ পোহাতে হচ্ছে। এলাকাবাসী বেলাল বলেন সড়কটিকে চলাচলে অনুপযোগি হয়ে পরে তার পরেও আমাদের কষ্ট করে যাতায়াত করতে হচ্ছে।

সরকার আসে সরকার যায় ,, নির্বাচন এলে প্রার্থীরা সড়কটিকে মেরামতের প্রতিশ্রুতি প্রদান করে নির্বাচনের পরে আরও কেউ খবর রাখে না। ইউনিয়ন ছাত্র লীগ সভাপতি / সাধারণ সম্পাদক বলেন আমরাও সড়কটিকে নিয়ে অনেক চেষ্টা করেছি কোন সুফল না পাওয়ায় আমরা সড়কটিকে মেরামত ও সংস্কারের দাবীতে এলাকাবাসীকে সাথে নিয়ে মানব বন্ধন করা সহ উপজেলা নির্বাহী অফিসারের মাধ্যমে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী, সড়ক ও সেতু মন্ত্রী ও জনপ্রশাসন মন্ত্রী,স্থানীয় সরকার মন্ত্রী বরাবরে স্বারক লিপি প্রদান সহ দেখা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। ৭ নং ওয়ার্ডের ইউনিয়ন পরিষদ সদস্য মমিনুর রহমান জানান আমরা সড়কটিকে নিয়ে কষ্টের মধ্যে আছি। চেষ্টা করেছি মেরামতের তহবিল না থাকায় পারছি না।

ব্যবসায়ী রফিক বলেন, সড়কটিকে মেরামত করা আমাদের একমাত্র দাবী,আরও বর্তমান সাংসদের তো দেখাই পাওয়া যায় না, সে তো নির্বাচনের পরে এ এলাকায় আসে নাই। তাকে কি বলবো।সে নির্বাচনের সময়ে তিনি বলেছিলেন এলাকার উন্নয়ন করবেন এ-ই তার সময়ে উন্নয়নের নমুনা। সাংসদের সাথে যোগাযোগ করার চেষ্টা করেছি তাকে পাই নিয়ে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

নিউজ ক্যাটাগরি