1. news@banglaroitizzo.com : BanglarOitizzo :
  2. imrankhanbsl01@gmail.com : Imran Khan : Imran Khan
  3. banglaroitizzo.news@gmail.com : newseditor :
বৃহস্পতিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২১, ০১:১২ পূর্বাহ্ন
ব্রেকিং নিউজ :
বরিশাল : ইতিহাস ও ঐতিহ্য পুরুষ কেন ধর্ষণ করে? গোবিন্দগঞ্জে অটোরিক্সা চালক হত্যাকান্ডের ঘটনায় ৩ জন গ্রেফতার রূপসায় আরিফ স্মৃতি ব্যাডমিন্টন ১৬ দলীয় টুর্নামেন্টের শুভ উদ্বোধন নলছিটিতে পৌর নির্বাচনে মেয়র পদে কেএম মাসুদ খানের প্রার্থীতা বহালের নির্দেশ সুপ্রিমকোর্টের গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভা নির্বাচনে প্রচার প্রচারণা ও সমর্থনে এগিয়ে স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী রাফি রংপুর পলিটেকনিক ইন্সটিটিউট রোভার স্কাউট গ্রুপের শীত বস্ত্র বিতারন কালীগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা সাবেক তুমুলিয়া ইউনিয়নের চেয়ারম্যান এর জানাজা নামাজ অনুষ্ঠিত। শাজাহানপুরে ইউএনওর বিদায় বেলা মূলা উপহার খুশিতে মিষ্টি বিতরণের ধুম আজমীর সভাপতি টুটুল সাধারণ সম্পাদক ঝালকাঠি টেলিভিশন সাংবাদিক সমিতির নতুন কমিটি ঘোষণা

জানুয়ারির শুরুতেই করোনার টিকার আসবে বাংলাদেশে

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৪৮ বার পড়া হয়েছে
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক

আগামী জানুয়ারির প্রথম দিকেই ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট থেকে অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকা’র তৈরি করোনাভাইরাসের টিকার প্রথম চালান দেশে আসবে বলে আশা ব্যক্ত করেছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বৃহস্পতিবার ( ১০ ডিসেম্বর) রাজধানীর মহাখালীতে অবস্থিত বিসিপিএস মিলনায়তনে হাম-রুবেলা টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, ‘আমরা আশা করি, আগামী মাসের (জানুয়ারির) প্রথম দিকেই আমরা টিকা পেয়ে যাবো। অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউটের মাধ্যমে বাংলাদেশে আনার ব্যবস্থা করেছি। তিন কোটি ডোজ টিকা সরকার নিয়ে আসছে সরাসরি।’

‘বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও) টিকা দেবে আমাদের জনসংখ্যার ২০ শতাংশ হারে। সেটা আসতে হয়তো কিছুটা সময় লাগবে। কিন্তু আমরা টিকা পাবো’, মন্তব্য করেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ টিকার এই ব্যবস্থা করতে পেরেছে  জানিয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন,‘অনেক দেশ আছে, যারা এখনও টিকার ব্যবস্থা করতে পারেনি।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক জানান, আগামী ১২ ডিসেম্বর সারা দেশে ৯ মাস থেকে ১০ বছরের নিচে প্রায় ৩ কোটি ৪০ লাখ শিশুকে এক ডোজ এম আর টিকা ( হাম রুবেলা) দেওয়া হবে। এই কর্মসূচি চলবে ২৪ জানুয়ারি পর্যন্ত।

সাপ্তাহিক ছুটির দিন ছাড়া প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বেলা ৩টা পর্যন্ত টিকা দান কর্মসূচি চলবে। স্বাস্থ্য অধিদফতর জানায়, করোনাভাইরাসের কারণে এ বছর শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে এই কর্মসূচি হবে না, টিকা দেওয়া হবে কমিউনিটি টিকাদান কেন্দ্রের মাধ্যমে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

নিউজ ক্যাটাগরি

©দৈনিক বাংলার ঐতিহ্য (2019-2020)