1. news@banglaroitizzo.com : BanglarOitizzo :
  2. imrankhanbsl01@gmail.com : Imran Khan : Imran Khan
  3. banglaroitizzo.news@gmail.com : newseditor :
মঙ্গলবার, ১৯ জানুয়ারী ২০২১, ০২:৫৫ পূর্বাহ্ন

১০ মাসের মধ্যে শতভাগ মাসিক রিটার্ন অনলাইনে

নিজস্ব প্রতিবেদক
  • প্রকাশিত: বৃহস্পতিবার, ১০ ডিসেম্বর, ২০২০
  • ৪৬ বার পড়া হয়েছে
vat

আগামী ১০ মাসে শতভাগ মাসিক রিটার্ন অনলাইনে দাখিলের আশা করছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড এনবিআর। কারণ, করোনাভাইরাসের কারণে ঘরে বসে অনলাইনে মাসিক রিটার্ন দাখিলের পরিমাণ বেড়েছে। চলতি অর্থবছরের অক্টোবর মাস পর্যন্ত প্রায় ৬৭ শতাংশ রিটার্ন দাখিল অলনাইনে হয়েছে। প্রায় ৭৪ হাজার রিটার্ন এ সময় অনলাইনে জমা হয়েছে। ফলে আগামী ৮ থেকে ১০ মাসের মধ্যে শতভাগ রিটার্ন অনলাইনে দাখিল করা যাবে।

বৃহস্পতিবার (১০ ডিসেম্বর) জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) সম্মেলন কক্ষে জাতীয় ভ্যাট দিবস ও ভ্যাট সপ্তাহ-২০২০ উপলক্ষে ওয়েবিনার এবং সেরা ভ্যাটদাতাদের সম্মাননা অনুষ্ঠানে এ তথ্য জানানো হয়।

অনুষ্ঠানে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সদস্য (মূসক নীতি) আবদুল মান্নান শিকদার এসব তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘যেসব করদাতা অনলাইনে রিটার্ন দাখিল করতে সক্ষম হচ্ছেন না তাদের জন্য সনাতনি কাগজে রিটার্ন দাখিলের ব্যবস্থাও থাকছে, যা পরবর্তী সময়ে ভ্যাট কর্মকর্তারা স্ক্যান করে ডিজিটাল ডেটায় পরিণত করছেন।’

অনুষ্ঠানে অভ্যন্তরীণ সম্পদ বিভাগের সিনিয়র সচিব ও জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের চেয়ারম্যান আবু হেনা মো. রহমাতুল মুনিম বলেন, ‘করোনার মধ্যেও আমাদের প্রবৃদ্ধি ঈর্ষণীয়। ট্যুরিজম, পরিবহনসহ অনেক খাতে স্থবিরতার পরেও আমরা ভালো করছি। ভ্যাটের ক্ষেত্র বৃদ্ধিতে দরকার অটোমেশন। এনবিআরে অটোমেশন প্রক্রিয়া চলমান আছে। কর প্রদান, ভ্যাট প্রদান সহজীকরণে কাজ করে যাচ্ছে এনবিআর।’

বাংলাদেশ চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রির (এফবিসিসিআই) প্রেসিডেন্ট শেখ ফজলে ফাহিম বলেন, ‘ভ্যাটের আওতা বাড়াতে আমরা কাজ করছি। তবে ভ্যাটের আওতা বাড়ালে ট্যারিফ কমিয়ে আনতে হবে। এ ব্যাপারে অর্থমন্ত্রী আমাদের আশ্বস্ত করেছেন।’

তিনি আরো বলেন, ‘করোনার মধ্যেও আমাদের রেমিটেন্স প্রায় ১০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, বৈদেশিক মুদ্রার রিজার্ভ ৪১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। নেক্সট নরমালের দিকে এগিয়ে যাচ্ছে দেশ।’

গ্রামীণফোনের সিইও ইয়াসির আজমান বলেন, ‘প্রবৃদ্ধির সাফল্য ধরে রাখতে হলে এনবিআরকে আরও বেশি ডিজিটাইজেশন করতে হবে। ইএফডি এনবিআররের একটি মাইলফলক, এতে ক্রেতা ও বিক্রেতা সব পক্ষের মাঝেই স্বচ্ছতা নিশ্চিত হবে।’

অনুষ্ঠানে জাতীয় পর্যায়ের সর্বোচ্চ ভ্যাট প্রদানকারী নয়টি প্রতিষ্ঠানকে সম্মাননা দেওয়া হয়। উৎপাদন খাতে পপুলার ফার্মাসিউটিক্যালস লিমিটেড, বার্জার পেইন্টস বাংলাদেশ লি. ও ফেয়ার ইলেকট্রনিক্স লিমিটেডকে পুরস্কার ও সম্মাননা দেওয়া হয়। ব্যবসা খাতে হ্যামকো করপোরেশন লিমিটেড, সিমেন্স বাংলাদেশ লিমিটেড ও ইউনিমার্ট লিমিটেডকে ছাড়াও সেবা খাতে সামিট কমিউনিকেশনস লিমিটেড, কাতার এয়ারওয়েজ গ্রুপ (কিউসিএসসি), চিটাগাং ওয়্যারহাউজেস লিমিটেডকে সর্বোচ্চ ভ্যাট প্রদানকারী সম্মাননা দেওয়া হয়।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

নিউজ ক্যাটাগরি

©দৈনিক বাংলার ঐতিহ্য (2019-2020)